Follow us

রাজশাহীতে তরুণদের স্বপ্ন দেখালো ই-কমার্স মেলা

রাজশাহীতে তরুণদের স্বপ্ন দেখালো ই-কমার্স মেলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :: স্বল্প পুঁজি নিয়ে শহর-গ্রামে বসেই দেশজুড়ে এমনকি ক্ষেত্র বিশেষে বিশ্বজুড়ে স্থানীয় পণ্যের অনলাইন বিপণনের সম্ভাবনা নতুন করে চোখ খুলে দিলো রাজশাহী জেনারেল পোস্ট অফিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী ই-কমার্সের ডাক মেলায়। মেলায় আসা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী হাসিবুর রহমান জানালেন, ‘এই মেলা আমার জীবনের ধারণাকেই পাল্টে দিলো। আমি ভাবছি, বিশ্ববিদ্যালয়ের গণ্ডি উত্তীর্ণের আগেই আমি স্বাবলম্বী হয়েছি। মেলার প্রদর্শনী ও সেমিনারগুলো আমাকে দারুণ প্রভাবিত করেছে।’ এই তরুণ বললেন, ‘ভাবছি রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী কিছু পণ্য নিয়েই একটি অনলাইন শপ গড়ে তুলবো।’

সপরিবারে মেলায় ঘুরতে আসা বেসরকারি একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা হাসনাইন খুরশীদ তো মেলায় এসে মহা উচ্ছ্বসিত। বললেন, ‘এখনতো জীবন হাতে নিয়ে রাস্তাঘাটে চলতে হয়। এক্ষেত্রে ঘরে বসেই চাল-ডাল-তেল সহ নিত্য প্রয়োজনীয় তৈজসপত্রও যখন অনলাইনে চলে এসেছে, সেক্ষেত্রে দুর্ভাবনা কমলো। ঢাকার গণ্ডি পেরিয়ে ই-পোস্ট সেবার ডিজিটাল রূপান্তরের মাধ্যমে শহরতলী বিশেষ করে গ্রামেগঞ্জে এই সেবা পৌঁছে দেয়ার এই আয়োজন আরো বেশি বেশি করতে ই-ক্যাবের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে। এর চেয়েও বড় পরামর্শ থাকবে গ্রাহকের অভিযোগ নিষ্পত্তি ও তাদের অধিকার রক্ষায়ও যেন সংগঠনটি তৎপর থাকে। তা না হলে পুরো উদ্যোগই কিন্তু ব্যর্থ হবে।’

ভরদুপুরে মেলার প্রাঙ্গনজুড়ে ঝুমুর পায়ে দৌড়ঝাঁপ রত এক কিশোরির কাছে জানতে চাইলে বললো, রকমারির স্টল থেকে সে তার দীর্ঘদিনের পছন্দের বিজ্ঞান বাক্স কিনেছে।

শহরের বিনোদপুরের অধিবাসী গৃহিণী সফুর খাতুন তো মেলায় এসে বেজায় খুশি। দারাজের অ্যাপ ডাউনলোড করেই ফ্রি এক লিটার সয়াবিন তেল পেয়ে যেন তার পুরো মুখ জুড়েই প্রশংসার তেল চুপচুপ করছিল।

মেলা প্রাঙ্গনের ২টি প্যাভিলিয়ন ও ৩টি মিনি প্যাভিলিয়নসহ ৩১টি স্টলে দর্শনার্থী, উদ্যোক্তা আর বিনিয়োগকারীদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে আজ শনিবার রাজশাহীতের শেষ হলো দিনব্যাপী ই-কমার্স মেলা।

এর আগে নগরীর জেনারেল পোস্ট অফিস ভবনে সকালে মেলার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার মন্ডল। ই-ক্যাব সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল ওয়াহেদ তমালের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী পোস্টাল একাডেমির অধ্যক্ষ মো. সিরাজ উদ্দিন এবং পোস্ট মাস্টার জেনারেল (উত্তরাঞ্চল) মো. শফিকুল আলম।

অনলাইনের মাধ্যমে পণ্য সেবা প্রদর্শনের পাশাপাশি চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের প্রেক্ষাপটে এই সময়ের গ্লোবল ভিলেজের ব্যবসায়ের ডিজিটাল রূপান্তরে আমাদের প্রস্তুতি সংশ্লিষ্ট ৩টি বিষয় ভিত্তিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয় মেলা প্রাঙ্গনেই। সবার জন্য উন্মুক্ত সকাল সাড়ে ১১টায় ‘নারী উদ্যোক্তাদের ই-কমার্স সেবায় তথ্যআপা, দুপুর আড়াইটায় ‘গ্রামীণ উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে ই-কমার্স এবং বিকেল ৪টায় ‘ফেসবুকে বিজনেস’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় মহিলা সংস্থার আয়োজনে সংস্থার নির্বাহী পরিচালক জাহানারা পারভীনের সভাপতিত্বে ‘নারী উদ্যোক্তাদের ই-কমার্স সেবায় তথ্যআপা’ শীর্ষক সেমিনারে আলোচনা করেন তথ্যআপা প্রকল্প পরিচালক মীনা পারভীন, ই-ক্যাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদ তমাল, ই-ক্যাব উপদেষ্টা অধ্যাপক মমতাজ বেগম এবং জাতীয় মহিলা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক জাহানারা পারভীন।

এটুআই এর আয়োজেনে দুপুর আড়াইটায় ‘গ্রামীণ উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে ই-কমার্স’ সেমিনারে প্রধান আলোচক ছিলেন ডাক বিভাগের মহাপরিচালক সুশান্ত কুমার মণ্ডল। সেমিনারে আলোচনায় অংশ নেন ই-ক্যাব ভাইস প্রেসিডেন্ট রেজওয়ানুল হক জামি, ই-ক্যাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহেদ তমাল, বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের প্রকল্প পরিচালক এএসএম শফিকুল ইসলাম।

দিনের শেষ সেমিনার ‘ফেসবুকে বিজনেস’ ছিল তরুণ-উদ্যোক্তা ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ঠাসা। গিকি সোশ্যালের ডিজিটাল মার্কেটিং স্পেশালিস্ট পিয়াস ইসলাম, ক্রিয়েটিভ আইটির গ্রাফিক্স ডিজাইন বিভাগের সিনিয়র ফ্যাকাল্টি মেম্বার মোহাম্মদ উল্লাহ রকি আগ্রহীদের হাতে কলমে ক্ষুদ্র পরিসরে এফ কমার্স এর নান্দনিক ও উদ্ভাবনী বিষয় শিখিয়ে দেন।

দিনব্যাপী বিভাগীয় পর্যায়ে এই ই-কমার্স মেলার পৃষ্ঠোপোষকতা করে চালডাল ডটকম, রেজিস্ট্রো ডটকম, রকমারি ডটকম, প্রিয়শপ ডটকম, দিনরাত্রি, এসএমইভাই, স্পিকলার, শোপারু, সিঙ্গার, ট্রাভেল ম্যাট, এসএসএল কমার্জ এবং মাসিক কম্পিউটার জগৎ।

দিনভর পণ্য ও সেবা প্রদর্শনের পাশাপাশি প্রতি ঘণ্টার র‌্যাফেল ড্র ছাড়াও ৩১টি স্টল থেকে ছাড় ও বিশেষ মূল্যে পণ্য বিক্রি করে মেলায় অংশগ্রহণকারী ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো। এর মধ্যে দারাজের স্টল থেকে অর্ডার করলেই এক হাজার জনকে এক লিটার তেল ফ্রি দেয়া হয়, লিফলেট কুইজে প্রতিঘণ্টার র‌্যাফেল ড্র তে টিভি, স্মার্টফোন, ভিআর বক্স, স্পিকার, শার্ট, বৈশাখী শাড়ি ইত্যাদি উপহার দেয়া হয়। স্থানীয় শিল্পীদের মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় রাজশাহী বিভাগের ই-কমার্স মেলা।

এর আগে গত ৩০ মার্চ অনুষ্ঠিত হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগের ই-কমার্স মেলা। আগামী ১০ এপ্রিল সিলেটে, ২০ এপ্রিল খুলনায়, ২৭ এপ্রিল রংপুরে, ৪ মে বরিশালে, ১১ মে ময়মনসিংহে এবং ১৮ মে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে মেলা। বাংলাদেশ ডাক বিভাগের সকল বিভাগীয় কার্যালয়ে এই ই-কমার্স মেলার আয়োজক ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) ও ডাক বিভাগ।

বিডি প্রেস রিলিস/ ০৮ এপ্রিল ২০১৯/ এমএম


LATEST POSTS
“বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপট: বাংলাদেশের মুক্তির উপায়” শীর্ষক বার্ষিক সম্মেলন

Posted on নভেম্বর ২৯th, ২০২২

সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির চুক্তি

Posted on নভেম্বর ২৯th, ২০২২

মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেল ‘নগদ’

Posted on নভেম্বর ২৭th, ২০২২

নতুন মডেলের ফোরকে ইন্টারঅ্যাকটিভ ডিসপ্লে আনলো ওয়ালটন

Posted on নভেম্বর ২৭th, ২০২২

ইউএস-বাংলার বিমান বহরে যুক্ত হলো আরো একটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০

Posted on নভেম্বর ২৭th, ২০২২

সর্বাধিক ছয়টি রপ্তানি পদক পেল প্রাণ-আরএফএল

Posted on নভেম্বর ২২nd, ২০২২

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাটলকে তারুণ্যের রঙে রাঙিয়ে দিলো স্কিটো

Posted on নভেম্বর ২২nd, ২০২২

পুঁজিবাজারে যোগ হলো নতুন স্বপ্ন

Posted on নভেম্বর ২১st, ২০২২

যাত্রা শুরু করল সুমাশ টেক লিমিটেড

Posted on নভেম্বর ১৯th, ২০২২

বিক্রিতে রিয়েলমি সি৩৩ রেকর্ড গড়ল দারাজ ১১.১১ ক্যাম্পেইনে

Posted on নভেম্বর ১৭th, ২০২২